১৬/০১/২০২০- জীবন একটাই।

Categories

জীবন একটাই, এ জীবনে সাহসীরাই জয়ী হয়, আর দুর্বলেরা খড়কুটা ধরে কোনো রকমে বেচে থাকে। যে জীবনে চ্যালেঞ্জ নাই, সেটা এডভেঞ্চারাস নয়। যে জীবনে প্রত্যাশা নাই, সে জীবন একটা বোরিং লাইফ। অলিম্পিকের একজন দৌড়বিদ চুড়ান্ত সাফল্য পেতে একই দৌড় হাজারবার দিতে হয়। সব প্রতিযোগীরাই অলিম্পিকের একটা দৌড়ে সাফল্য পাওয়ার জন্য দিনের পর দিন, মাসের পর মাস, বছরের পর বছর একই দৌড় দিতে থাকে। সাফল্য আসবে কিনা সেটা বিচারের দিন সাবস্থ্য হয় সেদিন যেদিন সব দৌড়বিদরা একসাথে প্রতিযোগীতায় নামে। সেদিন বুঝা যায়, কে কতটা সাফল্যের জন্য দৌড়েছিলো। মজার ব্যাপার হলো, সাফল্যের একটা ফেস ভেল্যু আছে। দৌড়ে হয়তো একজন দৌড়বিদ সাফল্য পায়, কিন্তু তারসাথে সাফল্য পায় তিনিও যিনি এই ক্রিড়াবিদকে গাইড দিয়ে, অভিজ্ঞতা দিয়ে, মেধা দিয়ে সাফল্য পেতে সাহাজ্য করেছেন। আর তার সাথে বড়সড়ে সাফল্য পায় দেশ তথা বিশ্ব। এই সাফল্যমন্ডিত জীবন তখন হয়ে উঠে একটা লিজেন্ড। আর লিজেন্ডরা জগতে বারবার উচ্চারিত হয়। জীবনে সাফল্য আসে শুধুমাত্র নিজের গুনে। কেউ যদি সাফল্য না পান, সে অনেকের ঘাড়ে তার এই ব্যর্থতা চাপিয়ে দিতে পারেন বটে কিন্তু ব্যর্থ মানুষকে কেউ মনে রাখে না। ইতিহাসে কিছু নামীদামী ব্যর্থ মানুষের নাম কেউ মনে রাখলেও সেটাও নিতান্ততই সাফল্য মন্ডিত ওই লিজেন্ড যার বিপরীতে কারো ব্যর্থতা এসেছিলো, তাই তাকে পাশাপাশি হয়তো মনে রাখে। এটা ওই ব্যর্থ লোকের কারনে নয়, আবারো সেই লিজেন্ডের কারনেই হয়তো ব্যর্থ মানুষটি বেচে থাকে ইতিহাসের পাতায়। নিজকে ভালোবাসো, নিজকে বিশ্বাস করো। সাফল্য তোমার। যারা নিজের উপর ভরসা করে নাই, তাদের প্রতিভা থাকা সত্তেও নিজেকে প্রস্ফুটিত করতে পারে নাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *