২৫/০৫/২০২০-করোনার শিক্ষা

Categories

প্রতিটি মহামারী, প্রতিটি দূর্যোগ প্রতিবার সমাজে একেকটা শিক্ষা নিয়ে আসে। কিছু দূর্যোগ শিক্ষা দেয় সমাজকে একত্রে বসবাস করার, কিছু শিখায় ধইর্য, আবার কিছু শিখায় ঈসশরকে যেনো ভুলে নাই তা। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাস আমাদেরকে যে শিক্ষা দিলো, তার থেকে আদৌ আমরা কিছু শিক্ষা নিলাম কিনা কে জানে। এই পৃথিবীর ভুখন্ড কে নিয়ন্ত্রন করলো, আর কে কাকে নিয়ন্ত্রন করতে পারলো, কোন ধর্মালয়কে কেনো কি কারনে খুলে দিলো, কতদিন পর খুলে দিলো, কার বিশ্বাস কোথায় গিয়ে শেষ পর্যন্ত ঠেকলো, এসব বিষয়ের বাইরেও আমি যেটা শিক্ষা পাইলাম তা হলো, আমরা সবাই একা এবং কেউ কারো জন্যই না।

একজন জীবিত মানুষের যে মুল্য, পরক্ষনেই সেই জীবিত মানুষটি যে এতো সস্তা এবং অবহেলিত, এটা আমার চোখে এবার খুব করে ধরা পড়লো। এই দুনিয়ার কোনো ধন সম্পদ, টাকা পয়সা কিংবা পজিশন কোনো কিছুই কারো কাছে মুল্য নাই। হোক সে দেশের প্রধান কর্মকর্তা, হোক সে সমাজের প্রধান কিংবা হোক সে বাড়ির কোনো হর্তাকর্তা। নিজের জীবনের যখন কারো হুমকী আসে, সে যতো ছোটই হোক বা বড়, তার নিজের হিসাব একেবারেই আলাদা। অন্য কোনো হোমরা চোমরা যেই হোক, যে যতো প্রতাপশালিই হোক, যে যতো সম্মানীয়ই হোক, যার যতো পয়সাই থাকুক, করোনা এই শিক্ষাটা চোখের মধ্যে আংগুল দিয়ে বুঝিয়ে দিলো, আপনি আমার প্রিয় স্বামী ছিলেন তো কি হয়েছে? আপনার করোনা, তাই আমি আপনার সাথে এক বিছানায় ঘুমাইতে পারবো না। আপনি দেশের প্রধান কর্তা তো কি হয়েছে? আপনার করোনা হয়েছে, তাই আপনার ধারে কাছেও আমি যাবো না। যদিও যাই, তাহলে আমি এমনভাবে যাবো যেন আপনার কোনো কিছুই আমার ধারে কাছেও স্পর্শ না করে। দূর থেকে এবং ইশারায় কথা হবে আপনার সাথে আমার। কিন্তু আপনি তো কথাও বলতে পারবেন না, কারন আপনার কন্ঠনালি রুদ্ধ। আপনি ধর্মজাজক, তো কি হয়েছে? আপনার করোনা হয়েছে, আপনার কাছে বসে আমি ধর্মের কোনো বানিও শুনতে ইচ্ছুক নই। আপনি করোনায় মরবেন, তো আমি কি করবো? আমি আপনার জন্য দূর থেকে চোখের জল ফেলবো কিন্তু কাছে গিয়ে জড়িয়ে ধরবো না। এমন কি আপনার জানাজার জন্য কোনো লোকও পাবেন না। আপনি সমাজে এইডস রোগীর থেকেও খারাপ। আপনি দিনরাত পরিশ্রম করে এতো অঢেল পয়সা সঞ্চয় করে গেলেন আপনার এতো আদুরে বাচ্চাদের জন্য, তো কি হয়েছে? আপনার করোনা, তাই, আপনাকে আর আমাদের দরকার নাই। যদি বলেন যে, সমস্ত সম্পত্তি আমার জন্য আপনি বিলিয়ে দেবেন, তারপরেও আমি আপনার সাথে একা ঘরে আপনার জন্যে সময় দেবো না।

বিশ্বাস হয় না? খালী একবার মুখ ফুটে মিথ্যা মিথ্যাই বলুন এবং করোনা রোগীর মতো অভিনয় করুন যে, আপনার করোনা হয়েছে, তারপরের ইতিহাসটা নিজের চোখেই দেখুন।

করোনা এটাই বুঝিয়ে গেলো, আমি আপনি সবাই একাই। হিসাবটা পরিষ্কার।

 

তুমি মাঝে মাঝে আমাকে প্রশ্ন করো না যে, আমি এতো বুঝি কেনো? এতার অনেক কারন এবং ইতিহাস আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *